বকশীগঞ্জে চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুর উপর হামলা

মতিন রহমান।। জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুর উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার ( ৫ মে) সকাল সাড়ে ১১ টার সময় তার উপর হামলা ও অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা ইউপি ভবনে চেয়ারম্যানকে ২ ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রাখেন। জানা যায় একজন নারী কর্মীর সাথে মিনাল খান নামে জনৈক ব্যাক্তি অশালিন আচরণ কারার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই হামলা ও অবরুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পরে বকশীগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে  ইউপি ভবন থেকে চেয়ারম্যানকে উদ্ধার করেন।

ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু জানান, বুধবার সকালে সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে সরকার কর্তৃক প্রদত্ত ত্রাণ সহায়তা বিতরণ কার্যক্রম চলছিলো। চলমান কার্যক্রমে সাধুরপাড়া ইউনিয়নের খানপাড়া গ্রামের বাবুল খানের ছেলে মিনাল খান জনৈক মহিলার সাথে অশালিন আচরণ করেন। পরে ওই মহিলা চেয়ারম্যানকে বিচার দেন। ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু অভিযুক্ত মিনাল খানকে ধমক দেন। ঘটনার খবর পেয়ে মিনালের সমর্থকরা লাঠিফলা নিয়ে চেয়াম্যানের হামলা করে। চেয়ানম্যান ইউপি ভবনে আশ্রয় নিলে হামলা কারিরা চেয়ারম্যানকে অবরুদ্ধ করে রাখেন। এক পর্যায়ে উত্তেজিত লোকজন ইউপি ভবনের নানা জিনিসপত্র ভাংচুর করেন। ঘটনার খবর পেয়ে বকশীগঞ্জ থানার পুলিশ সাধুরপাড়া ইউনয়নর পরিষদ ভবন থেকে বুধবার দুপুরে চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুকে উদ্ধার করেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে চেয়ারম্যানের সমর্থকরা প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

বকশীগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী অফিসার মুন মুন জাহান লিজা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুন মুন জাহান লিজা জানান, যথা সময়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ ও প্রশাসনের লোকজন উপস্থিত হওয়ায় পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।

বকশীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান,খবর পেয়েই পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে সাধুরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহামুদুল আলম বাবুকে উদ্ধার করা হয়েছে। ভুক্তভোগী মহিলার একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুত আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here